সিরাজগঞ্জে আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জোরপূর্বক বিধবার বাড়ী দখল

স্টাফ রিপোর্টারঃ

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে সন্ত্রাসী কায়দায় অসহায় এক বিধবার বাড়ী দখল করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। আদালত ওই জমির উপর স্থিতাবস্থা জারি করলেও তা উপেক্ষা করে বাড়ীর মাঝখান দিয়ে টিনের বেড়া দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে অসহায় ওই বিধবা বৃদ্ধাকে। শাহজাদপুর উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়নের মশিপুর গ্রামে মৃত আজহার আলী শান্তর স্ত্রী রোকেয়া খাতুনের (৬০) বাড়ী দখলের এই ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার পর থেকে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে ওই বৃদ্ধা এক প্রকার অবরুদ্ধ অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন। সরেজমিনে ভুক্তভোগী বৃদ্ধা ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রতিবেশী আব্দুল করিম গংদের সাথে সাড়ে ১১ শতক জমি নিয়ে বৃদ্ধা রোকেয়ার দ্ব›দ্ব ছিল। এ নিয়ে মামলা-মোকদ্দমা চলমান রয়েছে। এ অবস্থায় আব্দুল করিম গং বিবাদমান জমি দখলের জন্য বিভিন্ন সময় হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছিল। এরই এক পর্যায়ে গত ৪ ফেব্রæয়ারি দিনদুপুরে আব্দুল করিম গং ও তার সহযোগীরা ওই বৃদ্ধার বাড়ী জোরপূর্বক দখল করে। এ সময় তারা বৃদ্ধার বাড়ীর মাঝখান দিয়ে টিন ও বাঁশ দিয়ে বেড়া দেয়। এর পর থেকেই বৃদ্ধা রোকেয়া ওই বাড়ীতে অবরুদ্ধ রয়েছেন।

স্থানীয় শাহনাজ পারভীন ও হীরা জানায়, প্রতিপক্ষ আব্দুল করিম গং প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সাথে যোগসাজস করে ওই বাড়িটি দখল করেছে। আদালতের নিষেধাজ্ঞার সাইনবোর্ডটি তারা নামিয়ে ফেলেছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসেও ফিরে গেছে বলে দাবী করেন তারা। এ বিষয়ে অভিযুক্ত আব্দুল করিম জানান, আমাদের কেনা সম্পত্তি আমরা স্থানীয় চেয়ারম্যান-মেম্বর ও মাতব্বরদের সাথে পরামর্শ করে তাদের কথামত দখলে নিয়েছি। তবে স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল্লাহ এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি। শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান বলেন, বিষয়টি আমরা শুনেছি। তবে এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ করেনি। বাড়ী দখলের বিষয়ে অভিযোগ পেলে ফৌজদারী আইনে মামলা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

পাঠকের মন্তব্য
আরো পড়ুন