সিরাজগঞ্জে মওলানা ভাসানীর ৪৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন ।

আজিজুর রহমান মুন্না সিরাজগঞ্জ ঃ

মজলুম জননেতা মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে সিরাজগঞ্জ শহরের   ভাসানী ডিগ্রী কলেজ ও ভাসানী কেন্দ্রের  নানা আয়োজনে মৃৃৃত্যুবার্ষিকী পালন করা হয়েছে  । 

মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী ১৯৭৬ সালের এই দিনে ঢাকার পিজি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। পরে টাঙ্গাইলের সন্তোষে তাকে চিরনিদ্রায় শায়িত করা হয়।

এ উপলক্ষ্যে   মওলানা ভাসানী ডিগ্রী কলেজ  প্রাঙ্গণে রোববার (১৭  নভেম্বর) সকালে মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানীর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান,দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভা করা হয়েছে। 
এতে সভাপতিত্ব করেন, মওলানা ভাসানী ডিগ্রী কলেজে’র অধ্যক্ষ মোঃ জহুরুল ইসলাম। আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন, কামারখন্দের চৌবাড়ী ড. সালাম জাহানারা ডিগ্রী কলেজে’র সাবেক অধ্যক্ষ, বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাডঃ আব্দুল আজিজ সরকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা আজিজুর রহমান দুলাল,  সাবেক পিপি এ্যাডঃ রেজাউল করিম, এ্যাডঃ রহমতুল্লাহ আইয়ুব, পৌর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আসাদ উদ্দীন পবলু,  মওলানা ভাসানী কেন্দ্র -সিরাজগঞ্জের সভাপতি সানোয়ার হোসেন সানু,  সাধারণ সম্পাদক মোজাহিদুল ইসলাম দুদু,  অত্র কলেজে’র সহকারি অধ্যাপক  এবি এম আসাদুজ্জামান চৌধুরী, মওলানা ভাসানী ডিগ্রী কলেজে’র    গভনিংবডি’র সদস্য আব্দুল গাফ্ফার সরকার, মীর ফজলুল হোসেন প্রমুখ।

 মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী ১৮৮০ সালের ১২ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ পৌরসভার সয়াধানগড়া উত্তর পাড়া    গ্রামে মওলানা ভাসানীর জন্ম গ্রহন । সিরাজগঞ্জে জন্ম হলেও মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী তার জীবনের সিংহভাগই কাটিয়েছেন টাঙ্গাইলের সন্তোষে। তিনি কৈশোর-যৌবন থেকেই রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন।

পাঠকের মন্তব্য
আরো পড়ুন