সরিষাবাড়ীতে জমি নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আহত-১৫

তৌকির আহাম্মেদ হাসু , সরিষাবাড়ী (জামালপুর)প্রতিনিধি ঃ

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলায় পোগলদিঘা ইউনিয়নে জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের নারী-পুরুষসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়েছেন। আহতদের সরিষাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।গতকাল শুক্রবার  ২৯ নভেম্বর বিকেলে মানিকপটল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় , সরিষাবাড়ী উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের মানিকপটল গ্রামের মৃত কানু শেখের ছেলে আয়নাল শেখের দুই একর জমি প্রতিবেশী হেলাল ফকির  প্রভাব খাটিয়ে জবর দখল করে নেয় ৬ বছর আগে। এ নিয়ে হেলাল ফকিরের  সাথে র্দীঘদিন ধরে আয়নাল শেখের বিরোধ চলে আসছিল। জবর দখল করা দুই একর জমির  মালিক আয়নাল শেখ বাদী হয়ে  হেলাল ফকিরকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত এ মামলায় গত জুন মাসে আয়নাল শেখের পক্ষে রায় দেন। আদালত থেকে রায় পেয়ে ওই জমি দখলে যাওয়ার চেষ্টা করেন আয়নাল শেখ।
হেলাল ফকির  এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় আদালতের রায় তুয়াক্কা না করে আয়নাল শেখকে নানা ভাবে হেলাল ফকির ও সন্ত্রাসী দিয়ে  হত্যার হুমকি ধামকী দিয়ে আসছিলেন। পরে  গতকাল শুক্রবার ২৯ নভেম্বর দুপুরে আয়নাল শেখ তার পরিবারের লোকজন  নিয়ে আদালত থেকে রায় পেয়ে ওই জমি দখল করে বীজ বপন করেন। এ সংবাদ পেয়ে হেলাল ফকির  ও মোতালেব রহমান সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী ও  লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে আয়নাল শেখের লোকজনের উপর চড়াও হয়ে হামলা চালান।
এ সময় হামলায় উভয় পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নারী-পুরুষসহ অন্তত ১৫ জন আহত হয়। আহতরা হলেন- হেলাল ফকির  (৪০), ফুল মাহমুদ (৫২), সাবলু মিয়া (২৮), মোয়াজ্জেম হেসেন (৩০), নারগিস বেগম (৪০), বন্যা আক্তার (২৮), মেরীনা বেগম (৪১), বিলকিস বেগম (৪৫), হবিবুর রহমান (৪০), লাভলী বেগম (৩৫), রাশেদা বেগম (৪৮), তোফাজ্জল হোসেন (৩৫), জুলেখা বেগম (৫০), কবির মিয়া (৪০) ও আব্দুল্লাহ (৩০)।

পাঠকের মন্তব্য
আরো পড়ুন