কাজিপুরে ভূয়া কাজী আটক, কারাদন্ড ছয় মাস

মোহাম্মদ আশরাফুল, কাজিপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে হরিনাথপুর গ্রামের জুড়ান মিয়া নামের এক ভূয়া কাজীকে আটকের পর জেলে পাঠিয়েছে কাজিপুর থানা পুলিশ। কথিত ওই কাজী কাজিপুরসহ পাশের তিনটি উপজেলার বিভিন্ন কাজীর নাম, সিল ও রেজিস্টার ব্যবহার করে একাধিক বাল্যবিয়ে পড়িয়েছেন।কাজিপুরের পাশ্ববর্তি বগুড়ার ধুনট উপজেলার আইন শৃংখলা কমিটির বৈঠকে সম্প্রতি বাল্যবিয়ে পড়ানোর কাজী হিসেবে জুড়ান কাজীর নাম উঠে আসে। বিষয়টি সেখানকার ইএনও কাজিপুরের ইউনওকে অবহিত করেন। এছাড়া কাজিপুরের চরকাদহ গ্রামে এক বাল্যবিয়ে পড়ানোয় জুড়ানের বিরুদ্ধে এক নারী ইউএনও’ র নিকট অভিযোগ দায়ের করেন।

গত বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) ওই ভূয়া কাজীকে ডেকে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি তা সম্পূর্ণ অস্বীকার করেন। ওই দিন রাতে পুলিশ ফোর্স নিয়ে ইউএনও জুড়ানের বাড়িতে অভিযান চালায়। এসময় আশপাশের তিন চারটি উপজেলার বিয়ে পড়ানোর রেজিস্টার ও সিলসহ মোট দুই বস্তা বই উদ্ধার করা হয়। রাতে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ওই ভূয়া কাজীকে ছয় মাসের কারাদন্ড দেন ইউএনও। শুক্রবার তাকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ। কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) জাহিদ হাসান সিদ্দিকী জানান, “ জুড়ানের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে কাজিপুরসহ পাশের ধুনট, শেরপুর উপজেলার নানা ইউনিয়নে বাল্যবিয়ে পড়ানোর প্রমাণসহ বই ও সিল উদ্ধার করা হয়েছে। গত দেড়মাসে নানা জায়গা তিনি মোট ২৩ টি বাল্যবিয়ে পড়িয়েছেন ।” 

পাঠকের মন্তব্য
আরো পড়ুন