উল্লাপাড়ায় লুপ লাইনের ত্রুটির কারণে রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেন দুর্ঘটনা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি :

বহস্পতিবার রাতে জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহম্মেদের কাছে প্রতিবেদন দাখিল করেন তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ফিরোজ মাহমুদ। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনসহ ৮টি বগি লাইনচ্যুত ও আগুনের ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছে জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি। জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহম্মেদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেছেন, দুর্ঘটনার দিন জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে ৫ সদস্যর একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এ কমিটিতে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন ছাড়াও পুলিশ ও রেলওয়ের কর্মকর্তা ছিলেন। তদন্ত শেষে ৫ কর্মদিবসের মধ্য প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়৷কমিটি পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে বিশ্লেষণ করে দুর্ঘটনার বেশ কয়েকটি কারণ বের করা হয়েছে। ৫টি সুপারিশ সম্বলিত ২৯ পৃষ্ঠার প্রতিবেদন জমা দিয়েছে তদন্ত কমিটি। প্রতিবেদনটি মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। জেলা প্রশাসক আরও বলেন, প্রতিবেদনে প্রাথমিকভাবে বলা হয়েছে লুপ লাইনে ত্রুটির কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে রেললাইনের স্টক রেল ও টাং রেল দুটি লক থাকার কথা ছিল, কিন্তু সেখানে লক ছিল না। দুটো লাইনের মাঝখানে ফাকা ছিল। যে কারণে ট্রেনের ইঞ্জিন সেখানে এসে লাইনচ্যুত হয়েছে।

এছাড়াও দুর্ঘটনার আরো কয়েকটি কারণ উল্লেখ করা হয়েছে। সেগুলো মন্ত্রণালয়ে পাঠনোর পরে তারাই প্রকাশ করবে। উল্লেখ্য, গত ১৪ নভেম্বর দুপুর ২টার দিকে ঢাকা থেকে রংপুরগামী রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনটি উল্লাপাড়া রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছার আগে এর ইঞ্জিনসহ ৮টি বগি লাইনচ্যুত হয়। এ সময় ট্রেনের ইঞ্জনসহ তিনটি বগিতে আগুন ধরে যায়। এ দুর্ঘটনায় আহত হন ৫ জন।

পাঠকের মন্তব্য
আরো পড়ুন